শুটিং শুরু হচ্ছে নিরব-অপু জুটির প্রথম ছবির !

চা বাগানে নানা অনিয়ম ও বিভিন্ন দুর্ঘটনা ঘটে থাকে। একবার এক ব্যক্তি খুন হন। কে বা কারা এই খুন করেছে তা নিয়ে ধোঁয়াশা থাকলেও খুনের অভিযোগ ওঠে সুমিতের বিরুদ্ধে। এমন গল্প নিয়ে গড়ে উঠেছে ‘ছায়াবৃক্ষ’ সিনেমার কাহিনি। সম্প্রতি সিনেমাটিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন চিত্রনায়ক সুমিত সেনগুপ্ত।

বন্ধন বিশ্বাস পরিচালিত ছায়াবৃক্ষ সিনেমায় নিরব অপু বিশ্বাস প্রথমবারের মতো জুটিবদ্ধ হয়ে কাজ করতে যাচ্ছেন কোনো সিনেমায়। ২০১৯-২০ অর্থবছরে পূর্ণদৈর্ঘ্য বিভাগে ৫০ লাখ টাকা অনুদান পেয়েছে সিনেমাটি। ছায়াবৃক্ষ সিনেমার কাহিনি, সংলাপ ও চিত্রনাট্য লিখেছেন তানভীর আহমেদ সিডনি। অনুপম কথাচিত্রের ব্যানারে আগামী মাসেই সিনেমাটির শুটিং শুরু হবে বলে জানান নির্মাতা।

ছায়াবৃক্ষ প্রসঙ্গে নিরব বলেন, ‘আমরা আগামী মাস থেকে সিলেটে সিনেমাটির শুটিং শুরু করবো। ছবির গল্পেই মূলত ভীষণ ভিন্নতা আছে। সব মিলিয়ে ভালো একটি টিমের সঙ্গে একটি ছবি করতে যাচ্ছি। তাই আমি নিজেও ভীষণ আশাবাদী।

মুসলিম হয়ে দুর্গা সাজ, তোপের মুখে নুসরাত !

কলকাতার প্রথম সারির নায়িকা নুসরাত জাহান। এছাড়া তিনি সাংসদ হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন। মুসলিম হওয়ার কারণে তিনি প্রায়শই বিতর্কের মুখে পড়েন নুসরাত। কখনো মন্দিরে গিয়ে পূজা করার কারণে আবার কখনো হিন্দুদের ধর্মীয় সাজ গ্রহণ করে।

বৃহস্পতিবার মহালয়ার দিন স্বামী নিখিল জৈনের বস্ত্র বিপণী সংস্থার বিজ্ঞাপনে মা দুর্গার বেশে ধরা দিয়েছেন নুসরাত জাহান। আর তাতেই কটাক্ষের মুখে পড়তে হয়েছে সাংসদ অভিনেত্রীকে।

নীল চওড়া পাড়ের লাল শাড়ি, হাতে শাঁখা-পলা, মাথায় টায়রা-টিকলি পরে, ত্রিশূল হাতে মা দূর্গার সাজে দেখা গেছে নুসরাতকে। দুর্গার সাজে মহালয়ার দিন ধরা দেয়ার কারণে সাংসদ, অভিনেত্রী নুসরাত জাহানের উদ্দেশ্যে কিছু লোকজন অশালীন মন্তব্য করেছেন।

নুসরাত জাহান বরাবরই এই সমস্ত সমালোচনাকে তোয়াক্কা করেননি। তিনি ঈদে রোজা রেখেছেন, আবার জন্মাষ্টমীতে সাজগোজ করে ধরা দিয়েছেন। এমনকি নিখিল জৈনের সঙ্গে বিয়ের ঠিক পরপর চওড়া সিঁদুর, হাতে চূড়া পরে নববধূর বেশে সংসদে ভাষণ দিতেও দেখা গিয়েছে তাকে। হাজির হয়েছেন রথযাত্রা অনুষ্ঠানেও। আর মহালয়াতেও তার অন্যথা হল না।

পূজার স্পেশাল যে গিফট, সেটা সৃজিতই আমায় দেবে

করোনা মহামারী আমাদের কাছ থেকে অনেক আনন্দই কেড়ে নিয়েছে। দুর্গা পূজার আনন্দটাও হয়তবা এবার মাটি হতে পারে। তবুও তারই মাঝে ‘কুড়িয়ে বাড়িয়ে’ যতটুকু আনন্দ খুঁজে নেওয়া যায় আর কি। পূজাতে নতুন জামা-কাপড় কেনার আনন্দই আলাদা। পূজার গন্ধের সঙ্গেই মিলেমিশে যায় নতুন জামা-কাপড়ের গন্ধ।

পূজার শপিং নিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম জি-নিউজের সঙ্গে ছিলেন অভিনেত্রী, সমাজকর্মী, রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। বিবাহ সূত্রে তিনি আবার সৃজিত ঘরণী। পূজাতে কী কিনেছেন, কীভাবে কাটানোর পরিকল্পনা করেছেন নিজেই জানালেন মিথিলা।

মিথিলা বলেন, এটা যদিও আমার প্রথম পূজা নয়। গত বছরও ২-৩ দিন পূজার সময় এখানে ছিলাম। তবে হ্যাঁ, বিয়ের পর এটা আমার প্রথম পূজা। (হাসি) এবার পুরো পূজাটাই এখানে থাকব। এখন এমন একটা অবস্থা পুজোর জন্য খুব যে পরিকল্পনা করে কিছু করতে পারছি তা নয়। তবুও একটু একটু করে কেনাকাটা করছি। সবার জন্য উপহার কেনা। পাচ্ছিও প্রচুর। (হাসি) দিদি গিফট দিয়েছেন (সৃজিতের বোন), মাও দিয়েছেন (শাশুড়ি মা)। পর্বে পর্বে উপহার পাচ্ছি। (হাসি) মা এখন একটা সালোয়ার কামিজ দিয়েছে। আমরা শান্তিনিকেতন বেড়াতে যাব। ওখানে কিছু কেনাকাটা করব ঠিক ক

আর বোন, ভাগ্নীর জন্য গিফট কিনেছি। সৃজিতের জন্ম স্পেশাল গিফট হিসাবে বাংলাদেশ থেকে পাঞ্জাবির কাপড় এনেছি। আমাদের দুজনেরই সুকুমার রায় খুব পছন্দ। সুকুমার রায়ের কবিতা লেখা আমার একটা শাড়ি আছে, ওই একই কাপড়ের সৃজিতের পাঞ্জাবি। এটা অর্ডার দিয়ে বানানো হয়েছে।

মাদক কারবারীকে রিয়ার ভাইয়ের মেসেজ ‘৫০ গ্রাম গাঁজা চাই’

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর মাদকযোগ নিয়ে জোর শোরগোল শুরু হয়েছে গোটা দেশ জুড়ে। মাদক কারবারী এবং পাচারকারীদের সঙ্গে রিয়া এবং সৌভিকের সম্পর্ক নিয়ে সংবাদমাধ্যমে শোরগোল শুরু হতেই বিভিন্ন তথ্য প্রকাশ্যে আসতে শুরু করেছে। এবার প্রকাশ্যে এল রিয়া চক্রবর্তীর ভাই সৌভিক চক্রবর্তীর সঙ্গে মাদক কারবারী অনুজ কেশওয়ানির হোয়াটস অ্যাপে চ্যাট। যেখানে সৌভিক চক্রবর্তীর হাতে মাদক পৌঁছে দেওয়ার কথা জানিয়েছেন অনুজ।

সৌভিক চক্রবর্তী এবং অনুজ কেশওয়ানির হোয়াটস অ্যাপের যে চ্যাট প্রকাশ্যে আসে সেখানে দেখা যাচ্ছে, রিয়ার ভাইকে মাদক পৌঁছে দেওয়ার কথা জানিয়েছেন অনুজ। যার উত্তরে সৌভিক জানান, প্রোডাক্টের কোয়ালিটি যেন ভাল হয়। গতবার অনুজ যে প্রোডাক্ট সৌভিককে দিয়েছিলেন তার কোয়ালিটি ভাল ছিল না।

এসবের পাশাপাশি রিয়ার ভাইকে গাঁজার ছবিও পাঠান অনুজ কেশওয়ানি। পাশাপাশি শিগগিরই সৌভিককে ৫০ গ্রাম গাঁজা চাই, পাঠিয়ে দেবেন বলে জানান অনুজ। ভারতীয় গণমাধ্যম জি নিউজের হাতে সৌভিক চক্রবর্তী এবং অনুজ কেশওয়ানির ওই হোয়াটস অ্যাপের কথপোকথন প্রকাশ্যে আসতেই ফের শোরগোল শুরু হয়েছে।

রিয়া চক্রবর্তীর বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে সেখান থেকে উদ্ধার করা হয় একাধিক ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস। রিয়ার বাড়ি থেকে বাজেয়াপ্ত হওয়া ডিভাইস থেকেই প্রকাশ্যে আসতে শুরু করে বিভিন্ন তথ্য।

যেখান থেকে জানা য়ায়, ২০১৬-১৭ সাল থেকে মাদকের নেশা এবং কারবারের সঙ্গে জড়িত রিয়া চক্রবর্তী। পাশাপাশি বিভিন্ন সময় রিয়া চক্রবর্তী বলিউডের একাধিক তারকাদের নিয়ে মাদক পার্টিরও আয়োজন করতেন বলে জানা যায়। রিয়ার পার্টিতে কোন তারকারা হাজি হতেন, সে বিষয়ে অবশ্য এখনও কিছু জানা যায়নি।

আনুশকা-কোহলিকে শুভেচ্ছা জানালেন মোদি

ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় তারকা জুটি আনুশকা শর্মা ও বিরাট কোহলি। দুই আঙিনার দুই তারকা কোটি ভক্তের ভালোবাসায় যেন প্রতিনিয়ত ছাড়িয়ে যাচ্ছেন নিজেদের। কয়েকদিন আগে খবর এসেছে সন্তান জন্ম দিতে যাচ্ছেন এই তারকা দম্পতি। খবরটি প্রকাশিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ভারতজুড়ে কোহলি-আনুশকাকে অভিনন্দন জানানোর ঢল নেমেছে। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

১৭ সেপ্টেম্বর মোদির জন্মদিনে তাকে টুইট বার্তায় শুভেচ্ছা জানান ভারতীয় জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ফিরতি টুইটের উত্তরে প্রধানমন্ত্রী লিখেন, ‘ধন্যবাদ বিরাট কোহলি। আমিও শুভেচ্ছা জানাই তোমাকে এবং আনুশকা শর্মাকে। আমি নিশ্চিত তোমরা অসাধারণ পিতা-মাতা হবে।’

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের ৯ ডিসেম্বর বিয়ের পিড়িতে বসেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও আনুশকা শর্মা। প্রায় তিন বছর পর তাদের সংসারে আসছে প্রথম সন্তান। আগামী বছরের শুরুতে কোহলি-আনুশকার প্রথম সন্তান পৃথিবীর আলো দেখবে বলে জানা গেছে।

বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের দল ঘোষণা করলো ব্রাজিল !

২০২২ বিশ্বকাপের মূল পর্বের টিকিট পাওয়ার লড়াইকে সামনে রেখে দল ঘোষণা করেছে ব্রাজিল। বিশ্বকাপ বাছাইয়ের এ দুই ম্যাচের জন্য শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) ২৩ সদস্যের স্কোয়াড ঘোষণা করেছেন ব্রাজিল কোচ তিতে। দলে ফিরেছেন গোলরক্ষক অ্যালিসন বেকার এবং রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে মাঠ মাতানো রদ্রিগো।

করোনা ভাইরাসের কারণে সময় মতো বাছাই পর্ব শুরু করতে পারেনি লাতিন আমেরিকার ফুটবল। দীর্ঘ প্রায় সাত মাস পিছিয়ে গেছে লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের সূচি। গেল মার্চে অনুষ্ঠিত হবার কথা থাকলেও করোনার কারণে ভেস্তে গেছে সব খেলা। পরিবর্তিত সূচিতে আবারো আগামী মাস থেকে শুরু হতে যাচ্ছে বাছাইপর্বের খেলা।

ব্রাজিলে প্রথম প্রতিপক্ষ বলিভিয়া। পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা তাদের মুখোমুখি হবে ৮ অক্টোবর। এর পাঁচদিন পর পেরুর বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নামবে তারা।

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ব্রাজিল দল:

গোলরক্ষক: অ্যালিসন বেকার, ওয়েভারটন, সান্তোস

ডিফেন্ডার: দানিলো, গাব্রিয়েল মেনিনো, রেনান লোদি, অ্যালেক্স তেলেস, থিয়াগো সিলভা, মার্কিনহুইস, ফেলিপে, রদ্রিগো কাইয়ো

মিডফিল্ডার: কাসেমিরো, ফাবিনহো, ব্রুনো গিমারেজ, ডগলাস লুইজ, এভারটন রিবেইরো, ফিলিপে কৌতিনিহো

ফরোয়ার্ড: নেইমার, এভারটন, গ্যাব্রিয়েল হেসুস, রদ্রিগো, রবার্তো ফিরমিনো এবং রিচার্লিসন।

এখন আর নতুন সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হবো না !

বলিউড নায়িকা আনুশকা শর্মা ‘আদিপুরুষ’ সিনেমায় হাজির হতে যাচ্ছেন ‘সীতা’ হয়ে। আর সেই সিনেমায় রাম হয়ে ধরা দেবেন ‘বাহুবলী’ খ্যাত জনপ্রিয় নায়ক প্রভাস। কিছুদিন আগে এমনই খবর প্রকাশ করেছিল ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো। এ নিয়ে বেশ উচ্ছ্বাস দেখা গিয়েছিল সিনেমাপ্রেমীদের মধ্যে। দক্ষিণের নায়ক ও বলিউডের নায়িকার অনস্ক্রিন কেমিস্ট্রি দেখার অপেক্ষায় ছিলেন সবাই। তবে সেটি সম্ভবত হচ্ছে না। কারণ ছবিটি করবেন না অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা!

সম্প্রতি জানা গেছে, প্রভাসের সঙ্গে ‘আদিপুরুষ’ সিনেমায় আনুশকা শর্মা চুক্তিবদ্ধ হননি। এটি কেবলই গুঞ্জন। এর কারণ হিসেবে তার মা হওয়াকেই মনে করছেন অনেকে। এছাড়া তার হাতে বেশকিছু কাজও রয়েছে, যেগুলো শিগগিরই তিনি শেষ করতে চান। কেননা এমন অবস্থায় খুব বেশিদিন হয়তো তিনি কাজ করতে পারবেন না।

এ প্রসঙ্গে আনুশকা বলেন, ‘আদিপুরুষ সিনেমা নিয়ে যে খবর ছড়িয়েছে সেটি নিতান্তই গুজব। আমি এখনো সিনেমাটিতে চুক্তিবদ্ধ হইনি। আপাতত নতুন কোনো সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হবো না। হাতের কাজগুলো তাড়াতাড়ি শেষ করতে চাই। তবে আগামী বছরের শুটিং হবে এমন কোনো সিনেমা হলে তাতে কাজ করতে আপত্তি নেই।’ তার এই পরিকল্পনাটি তিনি স্বামী বিরাট কোহলির সঙ্গে আলোচনা করেই গ্রহণ করেছেন। সামনের দিনগুলোতে তিনি নিজেদের অনাগত সন্তানকে নিয়েই মনযোগী থাকতে চান।

চলচ্চিত্রের সবচেয়ে বড় সিন্ডিকেটের নাম হলো দর্শক কাজী মারুফ

পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করছেন চিত্রনায়ক কাজী মারুফ। সম্প্রতি ‘জীবন যেখানে যেমন’ নামের এক অনলাইন আড্ডাতে নিজের চলচ্চিত্র ভাবনাসহ সাম্প্রতিক কাজের কথা প্রকাশ করলেন। মারুফ বলেন, ‘আমেরিকা প্রবাসীদের বাস্তবতা নিয়ে ছবিটির গল্প। এখানকার উবার ড্রাইভারদের জীবনের গল্প থাকবে সিনেমাটিতে। আর এটি যুক্তরাষ্ট্রের মোশন পিকচার্সের অন্তর্ভুক্ত হয়েই ছবিটি রিলিজ হবে।’

উল্লেখ্য, এরই ভেতরে নিউইয়র্কে নিজস্ব এডিট প্যানেল থেকে শুরু করে শুটিং হাউজ, সবকিছুই গড়ে তুলেছেন তিনি। মারুফ বলেন, ‘আমার শরীরে ফিল্মের রক্ত। এই চলচ্চিত্রের ভেতর দিয়েই আমার বেড়ে ওঠা। তাই এর বাইরে আমি কখনোই ভাবতে পারি না। ভাবতে চাইও না।’

দেশবরেণ্য চিত্রপরিচালক কাজী হায়াত্ পুত্র কাজী মারুফ এদেশীয় চলচ্চিত্রে একাধিক সফল ছবি উপহার দিয়েছেন। হঠাত্ করেই দেশ ছেড়ে প্রবাস জীবন বেছে নিলেন কেন এমন প্রশ্নে কাজী মারুফ বলেন, ‘আমি তো ইচ্ছে করে আসিনি। দেশে আমার কিছু করার ছিল না। নানানভাবেই আমাকে আটকে দেওয়া হচ্ছিল। ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির নোংরা পলিটিক্স তো আমাকে আমার পরিবার শেখায়নি। কাজ ছিল না। বেকার হয়ে যাচ্ছিলাম। কারণ ফিল্ম ছাড়া তো কোনোকিছু করি না তখন। এর ওপরেই আমার সমস্ত জীবন-জীবিকা।’

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেতা কাজী মারুফ তার নতুন পরিকল্পনা প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমেরিকায় পরিবার নিয়ে আল্লাহর রহমতে খুব ভালো আছি। তবে ইউটিউবসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভ্রান্তিকর খবরগুলো পীড়া দেয়। যেমন যুক্তরাষ্ট্রে করোনা আক্রান্তের শুরুর দিকে দেশে খবর ছড়িয়ে পড়ল যে, আমার পরিবারের সবাই করোনা আক্রান্ত। অথচ ঘটনা তেমন কিছুই না। এ নিয়ে উদ্বেগ তৈরি হলো। আমার মনে হয় এই বহুল তথ্য প্রবাহের এ সময়ে খুব প্রয়োজন সঠিকভাবে যাচাই-বাছাই করে খবরটি প্রকাশ করা।’ দেশীয় চলচ্চিত্রের একাধিক সংগঠনের নানা তর্ক-বিতর্ক প্রসঙ্গে কাজী মারুফ বলেন, ‘দেখুন, চলচ্চিত্রের সবচেয়ে বড় সিন্ডিকেটের নাম হলো দর্শক। দর্শক যদি আপনাকে গ্রহণ করে তাহলে সবাই বয়কট করেও কিছু হবে না। আবার দর্শকরা যদি বয়কট করে সব সংগঠন মিলেও কিছু কেউ করতে পারবে না। আর সহকর্মীদের জন্য পারস্পরিক হওয়ার যে চর্চা, তাদের পাশে দাঁড়ানো, এগুলো তো আপনি মানুষ হিসেবেই করবেন। তার জন্য সমিতির প্রয়োজন নেই। সমিতি একটি মিলন কেন্দ্র মাত্র। এটাকে এত বড়ভাবে ভাবার কিছু নেই।’

দেশকে কতটা মিস করেন? এ প্রশ্নে মারুফ বলেন, ‘অনেকেই আমাকে প্রশ্ন করেন। আমেরিকায় তো খুব ভালো আছেন। আমি বলি না, আমার ঐ দেশের ধুলোবালিই ভালো লাগে। এদেশে যতই আমি আর্থিকভাবে সমৃদ্ধ থাকি না কেন, এদেশ আমার না।’

মেসির দুই দশক

আর্জেন্টিনা ছেড়ে ভীরুভীরু পায়ে প্রথমবারের মতো বার্সেলোনায় পা রেখেছিলেন লিওনেল মেসি। ছিল একটাই স্বপ্ন, স্পেনের বিখ্যাত এই ক্লাবের একজন হওয়া। শারীরিক বাধা পেরিয়ে কাজটা সহজ ছিল না মোটেও। সে বাধার দেওয়াল টপকে মেসি নিজের স্বপ্নকে তো সত্যি করেছিলেনই, পরের ২০ বছরে ক্লাবেরও অজস্র স্বপ্নপূরণের প্রধান কুশীলব বনেছেন তিনি!

বার্সেলোনায় ২০ বছর পূর্তির দিনটা অবশ্য জোড়া গোল দিয়ে রাঙিয়েছেন মেসি। জিরোনার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে প্রথমে ফেলিপে কোটিনহোর গোলেও পরোক্ষ অবদান ছিল তার। ফলে ৩-১ ব্যবধানে অনায়াস এক জয় পেয়েছে কাতালান দলটি।

ছয় বারের ব্যালন ডি’অর জয়ীর ২১তম বছরটাই বার্সায় শেষ বছর হয়ে যেতে পারে। কিন্তু তার আগের সময়গুলোয় যা করেছেন তাতে তাকে দলটির ইতিহাসের সেরা খেলোয়াড় বলে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট। শেষ ২০ বছরে বার্সেলোনার হয়ে সম্ভাব্য সবকটি দলীয় জিতেছেন মেসি। ফলে ব্যক্তিগত শিরোপাও তার পায়ে লুটিয়ে পড়েছে পাল্লা দিয়ে।

২০০৪ সালে ফ্র্যাঙ্ক রাইকার্ডের কোচিংয়ে প্রথমবারের মতো মূল দলে খেলেন মেসি। এর এক বছর পর আলবাকেতের বিপক্ষে তার আদর্শ রোনালদিনহোর পাস থেকে করা এক দারুণ গোলে শুরু। বছর দুয়েক পর গেটাফের বিপক্ষে প্রায় ৯ জনকে ছিটকে দিয়ে ম্যারাডোনার শতাব্দীসেরা গোলটির মতোই এক লক্ষ্যভেদে নিজের আগমনী বার্তা শুনিয়েছিলেন মেসি।

রোনালদিনহোর ছায়া থেকে বেরিয়ে এসে নিজস্ব এক সত্তা তৈরি করেছিলেন পেপ গার্দিওলার অধীনে। ২০০৯ সালে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে তাদেরই মাঠে ‘ফলস নাইন’ অবস্থানে খেলিয়ে দুর্ধর্ষ ৬-২ ব্যবধানের এক জয় পেয়েছিলেন সে সময়ের বার্সা কোচ। ঐ বছরেই সম্ভাব্য ছয়টি শিরোপাই জিতে বার্সা, মেসি জেতেন ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফা বর্ষসেরা আর ব্যালন ডি’অর।

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মেসি আরো ভয়ংকরই হয়েছেন কেবল। ২০১২ সালে তো সব রেকর্ড ভেঙে করেন ৯১ গোল। এরপর আরো রেকর্ড ভেঙেছেন গড়েছেন। হয়েছেন বার্সার সর্বোচ্চ গোলদাতা, পরে হয়েছেন লা লিগারও। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গড়েছেন দ্রুততম শতগোলের রেকর্ড। পথে আরো দুটো চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপাও জিতেছেন আর্জেন্টাইন তারকা।

লিগেও সমানভাবে কথা বলেছে তার বাঁ পা। তার কৃতিত্বেই তো ২০১৫ থেকে ২০২০ পর্যন্ত ছয় মৌসুমে পাঁচটি লিগ শিরোপা জিতেছে দল, শেষ ১২ মৌসুমে আট বার।

সাম্প্রতিক সময়ে ক্লাবের সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় হয়তো ক্লাব ছাড়তে চেয়েছেন, তবে তাতে বার্সায় মেসির ইতিহাস ক্ষয়ে যাবে না একটুও।

বার্সার হয়ে মেসি

মোট ম্যাচ-৭৩১ গোলসংখ্যা-৬৩৪ জোগান-২৮৫

লা লিগায়

মোট ম্যাচ-৪৮৫ গোলসংখ্যা-৪৪৪ জোগান-২০১

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে

মোট ম্যাচ-১৪৩ গোলসংখ্যা -১১৫ জোগান -৩৯

হেফাজতে ইসলাম আমির আহমদ শফী আর নেই

হেফাজত ইসলামীর আমির ও চট্টগ্রামের হাটহাজারী দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম মাদরাসার সাবেক মহাপরিচালক (মুহতামিম) আল্লামা শাহ আহমদ শফী (দা.বা) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন) ।

শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিটে রাজধানীর আসগর আলী হাসপাতালে তিনি মারা যান। হেফাজতে ইসলামের ঢাকা মহানগরের নেতা জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের সহসভাপতি মাওলানা আব্দুর রউফ ইউসুফি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

হাটহাজারী মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে বৃহস্পতিবার দুপুরে অসুস্থ হয়ে পড়েন আল্লামা শফী। মাদ্রাসার মহাপরিচালক পদ থেকে পদত্যাগ করার পরপরই তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সকালে হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা মেডিকেল বোর্ডে বসেন। শুক্রবার শারীরিক অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় দুপুরে চিকিৎসকরা তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। পরে বিকালে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে তাকে ঢাকায় এনে রাজধানীর পুরান ঢাকার গেন্ডারিয়ায় আসগর আলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

দেশের শীর্ষ কওমি আলেম ১০৫ বছর বয়সী আল্লামা আহমদ শফী ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপসহ বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। এর আগেও কয়েকবার তাকে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছিল।